নিয়তি – ড. এমদাদুল হক

জীবনের অনেক অব্যাখ্যাত ঘটনা মানুষকে নিয়তির উপর বিশ্বাসী করে তুলে। জীবন চলার পথে প্রায় প্রত্যেকেই এটি উপলব্ধি করতে পারে যে, এমন অনেক ঘটনা রয়েছে যা মানুষ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। জন্ম, মৃত্যু, বিবাহ ইত্যাদি অনেক কিছুই আকস্মিক ঘটে যাওয়া ঘটনা বলেই মনে হয়। কখনো মনে হয়- সময় একজনকে উঠিয়ে দিচ্ছে, আবার অন্যজনকে নামিয়ে দিচ্ছে। কখনো মনে হয়- এক রহস্যময় শক্তি রয়েছে ঘটনাসমূহের পশ্চাতে। কেউ আপ্রাণ চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়- কেউ চেষ্টা না করেই বড় কিছু পেয়ে যায়। কখনো-কখনো ভুলই শুদ্ধ হয়ে যায়, আর শুদ্ধই ভুল হয়ে যায়। কখনো-কখনো পথ ভুলে আমরা লক্ষ্যে পৌঁছে যাই। কখনো-কখনো এমন কেউ এসে যায় আমাদের জীবনে, যাকে আমরা চয়ন করিনি। কখনো বা এমন কেউ হারিয়ে যায় জীবন থেকে, যে ছিল একমাত্র অবলম্বন।
বাস্তবে কোনোকিছুই আকস্মিক নয়- সবই কর্মফল। সব কর্ম একই প্রকৃতির নয়! কিছু কর্ম সঙ্গে সঙ্গে ফল দেয়। কিছু কর্ম বিলম্বে ফল দেয়, কিছু কর্মের ফল সঞ্চিত থাকে। আমাদের দৃষ্টি সবকিছু একসঙ্গে দেখতে পারে না, তাই ফলের ন্যায্যতা দুর্বোধ্য হয়ে উঠে।
নৌকা থেকে দেখা যায় শুধু ঢেউ- উপগ্রহ থেকে দেখা যায় সমগ্র সমুদ্রের কাঠামো।
কর্মফল প্রাপ্তি কালে কেউ আমাদের সম্মুখে কোন কর্মের কোন ফল, তা ব্যাখা করে না। এটি আবিষ্কার করতে পারে কেবল ব্যক্তি স্বয়ং।
ব্যর্থতা স্বীকার করতে অহং বাধা দেয়। তাই মানুষ নিয়তির উপর ব্যর্থতার দায় চাপিয়ে স্বস্তি লাভ করে।
আরেকজনের সফলতা দেখেও মানুষ তার যোগ্যতার স্বীকৃতি দিতে চায় না- বরং এটি বলতেই সে আরাম বোধ করে যে, ‘কপালে’ ছিল। বাস্তবে নিয়তি নয়- সঞ্চিত কর্মগুলোই ঘটনার রূপকার।
সৃজনশীলতা, আনন্দ, প্রেম কোনোটিই নিয়তি নির্ধারণ করে না। প্রত্যেক মানুষেরই কর্ম চয়ন করার অধিকার আছে। এমন কেউ নেই যে আড়াল থেকে কর্ম নিয়ন্ত্রণ করে। চন্দ্র রাহু কেতুর অবস্থান মানুষেরই চিন্তাজগতে। মঙ্গলদোষ নিজেরই দোষ। মঙ্গল গ্রহের উপর অমঙ্গলের দায় চাপিয়ে সান্ত্বনা পাওয়া আরো অমঙ্গলের কারণ হতে পারে- যদি ব্যক্তি তার কর্ম পদ্ধতি পরিবর্তন না করে, প্রস্তর ধারণের প্রবর্তনা করে।
জীবনে যদি কোনো লক্ষ্য থাকে, তবে সব চিন্তা লক্ষ্যের সঙ্গে যুক্ত হয় এবং একটি চিন্তার সঙ্গে আরেকটি চিন্তা এমনভাবে গেঁথে যায় যে চিন্তার একটি মালা তৈরী হয়। চিন্তার এই মালা মৃত্যুহীন। কোষ থেকে কোষে যেভাবে চিন্তাগুলো সঞ্চারিত হয় তেমনি তা সঞ্চারিত হয় জীবন থেকে জীবনে। এইভাবেই আরব্ধ পরিণত হয় প্রারব্ধে। একে পুনর্জন্ম না বলে বরং প্রতীত্যসমুৎপাদ বলা উত্তম।
প্রত্যেকটি চিন্তারই একটা ইতিহাস আছে। অতীত চিন্তা টেনে আনে বর্তমান চিন্তা। বর্তমান চিন্তা টেনে আনে ভবিষ্যৎ চিন্তা। কার্যকারণ জগতের একটি অলঙ্ঘনীয় বিধি। প্রত্যেকটি চিন্তার সংযোগ রয়েছে অন্তহীন কার্যকারণের সঙ্গে। প্রত্যেকটি কারণ কার্য হয় এবং প্রত্যেকটি কার্য কারণ হয়।
চিন্তা উদ্দীপ্ত হয় বাসনা দ্বারা। কর্ম সম্পন্ন হয় চিন্তা দ্বারা। নিয়তি নির্ধারিত হয় কর্ম দ্বারা। প্রত্যেকটি কর্মের দুটি ফল রয়েছে, একটি নিজের জন্য অপরটি বিশ্বের জন্য। মানুষ কাজ করার সময় নিজের সুখ-দুঃখের কথা ভাবে বেশি, অন্যের সুখ-দুঃখের কথা ভাবে কম। কিন্তু মানুষের নিয়তি নির্ধারিত হয় মূলত অন্যের সুখ-দুঃখ ভাবনা থেকে।
যে শুধু নিজের কথা ভাবে প্রতীত্যসমুৎপাদে সে জন্ম নেয় তস্কর রূপে। যার চিন্তাজগতে ঘৃণা ও প্রতিশোধ স্পৃহা কর্তৃত্ব করে প্রতিত্যসমুৎপাদে সে ঘাতক রূপে জন্ম নেয়।
আকাশের তারা, হাতের রেখা কিংবা জিন যেখানেই নিয়তি লেখা থাকুক না কেন, তা লেখা হয় পেন্সিল দ্বারা, যেন তা মুছে নতুন নিয়তি রচনা করা যায়। জীবন মানেই সুযোগ- কর্মধারা পরিবর্তনের সুযোগ। নিজেকে পরিবর্তনের সুযোগ। নতুন নিয়তি প্রবন্ধের সুযোগ।
ঈশ্বর কাউকে অগ্নিতে দগ্ধ করার জন্য নরক সৃষ্টি করেননি। মানুষ ঈশ্বরের সন্তান। সন্তানকে নির্মম শাস্তি দিয়ে উল্লাস করার মতো নির্দয় অবিবেচক নন তিনি। তিনি মনুষ্যকে তার কর্মানুযায়ী ফল প্রদান করেন। বেশিও দেন না, কমও না। তাঁর বিচারে কোনো পক্ষপাতিত্ব নেই।
পিতা যেমন তার সন্তানকে সংশোধন করার জন্য বারবার সুযোগ দেন ঈশ্বরও তেমনি তার সন্তানকে বারবার সংশোধনের সুযোগ দেন।
যা ভবিষ্যতে ঘটবে তা ভবিতব্য। ভবিতব্য পরিবর্তন করার লক্ষ্যে মানুষ এখন যা করতে পারে, তা হলো বর্তমান। বিষপান করলে মৃত্যু হয়, তা জেনেও কেউ বিষ পান করবে কিনা, তা ব্যক্তির সিদ্ধান্ত।
দুর্ঘটনায় মৃত্যু কি ভবিতব্য? ‘সে বাসটিতে ছিল’ তাই তার মৃত্যু হয়েছে এটি যেমন ঠিক নয়, তেমনি ‘সে বাসটিতে ছিল না। থাকলে তারও মৃত্যু হতো।’ এটিও ঠিক নয়। ঘটনা ঘটে কারণের উপস্থিতিতে। কারণ তো এক অসীম শৃংখল।
কারণ উপস্থিতির নিয়ামক হলো মানুষ, মানুষের চিন্তা ও কর্ম। মানুষ চিন্তার বীজ বপন করে। চিন্তার বীজ থেকে জন্ম নেয় কর্মের বৃক্ষ। কর্মের বৃক্ষ থেকে সৃষ্টি হয় অভ্যাসের ফুল। অভ্যাসের ফুল থেকে উদয় হয় চরিত্রের ফল। চরিত্রের ফল পাকলে তার ভেতরে থাকে নিয়তির বীজ।
সুতরাং, মানুষ নিজেই যে আপন নিয়তির নিয়ন্তা- ইহাতে নাই কোনো ভুল। নিজের চিন্তা ও কর্মের বাইরে অদৃশ্য নিয়তির উপর বিশ্বাসকে বলা হয় ধর্মান্ধতা। এই ধর্মান্ধতা থেকেই উৎপন্ন হয় দুর্ভোগ।
বাল্মীকি ছিলেন দস্যু; স্বীয় প্রচেষ্টা দ্বারা তিনি ব্রহ্মের বরে কবিত্বশক্তি পেয়েছিলেন, রচনা করেছিলেন মহাকাব্য রামায়ণ। এটিই আশার কথা। আজ যে পাপীষ্ঠ, তার সম্মুখেও পরম সত্য লাভের পথটি উন্মুক্ত আছে।

(Visited 2 times, 1 visits today)

Related Post

Instant approval dofollow directory submission lis...   Instant approval dofollow directory submission list sites 2019 is here for you. All of these web directories are free to add any types of si...
মাছে-ফলে-সবজিতে বিষ – মোনেম অপু... মাছ ও ফল সংরক্ষণে ফরমালিন ব্যবহার চলে আসছে কত বছর হলো! রুই-কাতলা, আম-কলা, সবজি, দুধ কিছুই রেহায় পাচ্ছে না। ফরমালিন স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। ক...
সময় নাই – ড. এমদাদুল হক... মানুষের গড় আয়ু ৭২ বছর। এর মধ্যে প্রায় ২৫ বছর ঘুমিয়ে কাটে। ২৫ বছর কেটে যায় লেখাপড়ার সার্টিফিকেট নিতে। জীবনযাপনের প্রস্তুতি নিতে নিতে হঠাৎ তাকিয়ে দেখে স...
প্রতিদিনের খাদ্যতালিকার পাঁচ খাবার ডেকে আনছে মরণ র... প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় চোখ রাখলে অনেক সময়েই আঁতকে উঠতে হয়, বিশেষ করে যখন জানা যায় এই খাদ্যতালিকার বেশ কয়েকটি খাবারই আমাদের শরীরে মারণ রোগ ক্যানসারকে ...
পরিশ্রম – ড. এমদাদুল হক... ছোটবেলা থেকে আমরা নীতিকথা দ্বারা পীড়িত যে, ‘পরিশ্রমই সৌভাগ্যের প্রসূতি’। সৌভাগ্য যে কী, যদিও আমরা তা জানি না, তবু পরিশ্রম করে যাচ্ছি অবিরত। আমরা শিশু...
Amar bela je jay lyrics "আমার বেলা যে যায়" গানের লিরিক্সঃ আমার বেলা যে যায় সাঁজ বেলাতে তোমার সুরে সুরে সুর মেলাতে ।। আমার বেলা যে যায় একতারাটির একটি তারে গানের বেদন বই...
Earn money with coinbase Coinbase is the most popular cryptocurrency wallet in the world. This is the best and most secure way to get and pay Bitcoin or other currency. But th...
Bangla birthday sms Bangla birthday sms is here for you friends. In this post you will get the best and more romantic Bangla birthday sms to wish your special person. If ...
বিল গেটসের নিঃস্ব হতে কত বছর সময় লাগবে, জানলে অবাক... একজন ধনী ব্যক্তি যদি প্রতিদিন ১ মিলিয়ন ডলার বা ৮ কোটি টাকা খরচ করেন, তাহলে তার নিঃস্ব হতে কত দিন লাগবে? এর জবাব হিসাব-নিকাশ করে তারাই বলতে পারবেন।...
আজ রাতে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা আর ইরাক... মেসিকে ছাড়াই আজ ইরাকের বিপক্ষে মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা দল। এই ম্যাচের আগেই শোনা যাচ্ছে একাদশে প্রথম থেকেই থাকবেন দিবালা। তবে একাদশ এখনো ঘোষণা করা হয়নি।...

Leave a Reply