সময় নাই – ড. এমদাদুল হক

মানুষের গড় আয়ু ৭২ বছর। এর মধ্যে প্রায় ২৫ বছর ঘুমিয়ে কাটে। ২৫ বছর কেটে যায় লেখাপড়ার সার্টিফিকেট নিতে। জীবনযাপনের প্রস্তুতি নিতে নিতে হঠাৎ তাকিয়ে দেখে সময় শেষ। মানুষ যখন নিজের পায়ে দাঁড়ায় তখন চামড়া কুঁচকে যায়, পা আর চলে না, চোখ দেখে না, কান শুনে না।
প্রায় প্রত্যেকেরই অভিযোগ- ‘সময় নাই’। সাংসদরা ব্যস্ত আইন প্রণয়নে- সময় নাই। চোর ব্যস্ত চুরি করতে- সময় নাই। পুলিশ ব্যস্ত চোর ধরতে- সময় নাই। উকিল ব্যস্ত- মামলা লড়তে- সময় নাই। বিচারক ব্যস্ত- বিচার করতে- সময় নাই। ডাক্তার ব্যস্ত রুগী দেখতে; রুগী ব্যস্ত টেস্ট নিয়ে, দোকানদার ব্যস্ত ওষুধ নিয়ে। শিক্ষক ব্যস্ত কোচিং বাণিজ্য নিয়ে। পিতা ব্যস্ত পুত্র নিয়ে। পুত্র ব্যস্ত জিএফ নিয়ে। জিএফ ব্যস্ত বিএফ নিয়ে।
ইমাম ব্যস্ত নামাজ নিয়ে। মোয়াজ্জিন ব্যস্ত আজান নিয়ে। মুফতি ব্যস্ত ওয়াজ নিয়ে। ১মাস আগে বুকিং না দিলে এদের সঙ্গে দেখা করা যায় না। সবার এক কথা। সময় নাই। লালন শিল্পীদের কাছে যান- একই কথা। সবাই আরেকজনকে নিয়ে ব্যস্ত- নিজেকে ছাড়া। নিজেকে দেওয়ার জন্য ১০মিনিট সময়ও কারো নাই।
পীর সাহেবদের কাছে যান, একই ব্যাপার। হাজার ১টাকা নজরানা দিয়ে নাম লেখাও। ১মাস পরে ডেট। মিনতি করতে পারেন, ‘আমার তো এখনই দেখা করা দরকার, মনটা বড় উতলা হয়ে আছে’। উত্তর আসবে- ‘সময় নাই। কড়া নিষেধ, সিরিয়াল ভঙ্গ করা যাবে না’। কর্পোরেট গুরুদের দর্শন পেতে অপেক্ষায় থাকতে হবে কমপক্ষে ৩মাস- তাও যদি উপযুক্ত রেফারেন্স থাকে।
দাঁতের ডাক্তারের কাছে যান, একই ব্যাপার। দর্জির কাছে যান, একই ব্যাপার। চারিদিকে এত গার্মেন্টস। ভোর থেকে শুরু হয় ৩০লক্ষ গার্মেন্ট শ্রমিকের কারখানা যাত্রা- তবু দর্জির সময় নাই। দোকানদার, ধোপা, নাপিত, স্কুলের বাংলা স্যার, যার কাছেই যান- সময় নাই।
কত সময় কাটে ট্রাফিক জ্যাম, নাপিত, ধোপা, দর্জি, দাঁতের ডাক্তার, বাংলা স্যার, উকিল, পুলিশ, সাংসদের অপেক্ষায়? কত সময় কাটে ডেটিং, মিটিং, ফাইটিং, আড্ডা আর ফেসবুকে? কত সময় কাটে মেগা সিরিয়াল আর ক্রিকেট দেখে? কত সময় কাটছে ৫ইঞ্চি এনড্রয়েড স্ক্রিনে? এসব হিসাব করার সময় আছে? সময় নাই। নিজের দিকে তাকানোর সময় আছে? নাই। কবিতা পড়ার সময় আছে? নাই। বকুল ফুলের মালা গাঁথার? আরে ধ্যাত!
আমরা এমনভাবে বেঁচে আছি যেন অনন্তকাল বেঁচে থাকবো, আর অভিযোগ করছি, সময় নেই। আমরা স্বপ্ন দেখি ৫ছর পর ফিরে যাব গ্রামে। মাটির সাথে কথা বলব। শুরু করবো আসল বেঁচে থাকা। কীভাবে জানলাম যে আরো ৫বছর বেঁচে থাকবো?
সূর্য পশ্চিমাকাশে হেলে পড়েছে, এখনো বাঁচা শুরু হলো না! আর কবে বাঁচা শুরু হবে, নাদের আলী? মাথা নুইয়ে হাঁটুতে লেগে গেলে, তবে কি শুরু হবে তোমার বেঁচে থাকা?
একদিন আসবে, যেদিন আমি বেঁচে থাকবো নিজের জন্য, যেদিন আমি তাকাবো নিজের দিকে। গোলাপে জল দেব, পায়রাগুলো উড়ে এসে বসবে আমার কাঁধে। এ কেবলই সান্ত্বনা। কেবলি আত্ম প্রবঞ্চনা।
মানুষ সারাজীবন শুধু জীবনযাপনের প্রস্তুতি নেয়- বাস্তবে জীবনযাপন করে না। একটি দৌড় শেষ হয় তো আরেকটি দৌড়ের প্রস্তুতি চলে। তাই সময় নাই। আসলেই কি সময় নাই? আসলেই কি সব সাধ পূর্ণ করার জন্য সময় খুব কম?
যীশু বেঁচে ছিলেন মাত্র ৩৩ বছর।
যারা জগৎকে নাড়া দিয়ে গেছেন তারা এক জীবনের ক্ষুদ্র পরিসরেই তা করে গেছেন। সুতরাং এটি ঠিক নয় যে, সময় নাই। জীবন যথেষ্ট দীর্ঘ। যে যা করতে চায়, তা করার যথেষ্ট সময়ই আছে। সমস্যা হলো মানুষ সময় কাজে লাগায় না।
বেশিরভাগ মানুষই অকাজে সময় নষ্ট করে, আর হায়-হুতাশ করে যে, সময় নাই। জীবন মোটেও সংক্ষিপ্ত নয়- জীবনকে সংক্ষিপ্ত করে অকাজ, অতি নিদ্রা, অতি কথা, অতি দৌড়াদৌড়ি।
টাকা-পয়সার অপচয় কোনো অপচয়ই না। সময়ের অপচয় মানে জীবনের অপচয়। বেশিরভাগ মানুষই জীবনের অপচয়কারী। আর জীবনের অপচয়কারীই শয়তানের ভাই।
যে সময়কে ব্যবহার করতে জানে, তার কাছে সময় অনেক। যে লোভ, লালসার পিছু নেয় তার সময় কমে যায়। সে দৌড়তে থাকে আর দৌড়াতে থাকে। তার সময় নাই।
প্রকৃতির উপর দোষারোপ করে লাভ নেই। প্রকৃতি যাকে যতটুকু সময় দেয় তার জন্য ততটুকু সময়ই যথেষ্ট। প্রকৃতি মানুষকে জুয়া খেলা, মদ খাওয়া, ফেসবুকিং করার সময় দিয়ে পাঠায় না। প্রকৃতি মানুষকে মারামারি, কাটাকাটি করার সময় দিয়ে পাঠায় না। প্রকৃতি মানুষকে পরচর্চা, পরনিন্দা, পরকীয়া করার সময় দিয়ে পাঠায় না। প্রকৃতি মানুষ হামলা-মামলা করার সময় দিয়ে পাঠায় না। যারা এগুলোর চর্চা করে সময় নষ্ট করে, আসল কাজের জন্য তো তাদের সময় থাকবেই না।
প্রকৃতি মানুষকে অন্যের অধিকারে হস্তক্ষেপ করার জন্য পাঠায় না। কিন্তু আমরা বেষ্টিত আছি তাদের দ্বারা যারা অবিরত আমাদের অধিকার কেড়ে নিতে চায়। তাই আমাদের জীবন কেটে যায় প্রাচীর তৈরী করতে-করতে। জীবনযাপনের সময় আমরা পাই না।
যে যত বেশি ব্যস্ত থাকে তার সময় তত দ্রুত অতিবাহিত হয়। ব্যস্ত মানুষ ৭২ বছর বেঁচে থাকলেও ভাবে যে তার বাঁচা হয়ে উঠেনি। যারা কম কাজ করে, ধীরে হাঁটে, ধীরে খায় ৫০ বছর বেঁচে থাকলেও তাদের মনে হয় যে, হাজার বছর বেঁচে আছে। সময়ই জীবন। জীবনের গতি যদি ধীর হয়, তবে সময়ের গতিও ধীর হয়। বিশ্বাস না হলে- মাত্র ১দিন- টিভি মোবাইল ছাড়া, ইন্টারনেট বই ছাড়া একাকি কাটিয়ে দেখুন ২৪ ঘন্টা কত দীর্ঘ!

Collected from Facebook

(Visited 1 times, 1 visits today)

Related Post

মাছে-ফলে-সবজিতে বিষ – মোনেম অপু... মাছ ও ফল সংরক্ষণে ফরমালিন ব্যবহার চলে আসছে কত বছর হলো! রুই-কাতলা, আম-কলা, সবজি, দুধ কিছুই রেহায় পাচ্ছে না। ফরমালিন স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। ক...
Backup full wordpress site with updraft plus plugi... https://www.youtube.com/watch?v=AJI-ZMD7qWE
How to earn money online in bangladesh Earn money online in bangladesh in many ways. In this post, i will describe all about the ways as far possible. Before starting to earn money online, ...
Instant approval dofollow directory submission lis...   Instant approval dofollow directory submission list sites 2019 is here for you. All of these web directories are free to add any types of si...
Earn money with coinbase Coinbase is the most popular cryptocurrency wallet in the world. This is the best and most secure way to get and pay Bitcoin or other currency. But th...
Earn money online in bangladesh by typing Earn money online in Bangladesh by typing is now very easy for all. Students can do this job as part time. Typing job is very simple and easy job from...
Online money making guides Dear friends, in this post i will post many resources to make good amount of money from online. Keep in mind, you want to earn money from online, tha ...
পরিশ্রম – ড. এমদাদুল হক... ছোটবেলা থেকে আমরা নীতিকথা দ্বারা পীড়িত যে, ‘পরিশ্রমই সৌভাগ্যের প্রসূতি’। সৌভাগ্য যে কী, যদিও আমরা তা জানি না, তবু পরিশ্রম করে যাচ্ছি অবিরত। আমরা শিশু...
মুসলমান হিসেবে সবার নামাজ পড়া উচিৎ : সাকিব... বাংলাদেশ ক্রিকেটের উজ্জল নক্ষত্র ও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান সম্প্রতি পবিত্র হজ্বব্রত পালন করে এসেছেন। বর্তমানে এ তারকা ক্রিকেটার নিজের আঙুল...
জীবন-অভিজ্ঞতাজাত এবং তাৎপর্য... আমার বর্তমান যে কোঅর্ডিনেটর সেই মেয়েটা পাকিস্থানী । বলা বাহুল্য, এত অল্প সময়ে আমি কাজ করেছি ভারতীয়, চাইনিজ, অসি, নিউজিল্যান্ডার, কেনিয়া, ঘানা, ফিলিপিন...

Leave a Reply